নবীগঞ্জে পাওয়ার প্লান্টের ১২ লাখ ২৬ হাজার টাকা ছিনতাই ॥ আটক ২-
মতিউর রহমান মুন্না, নবীগঞ্জ থেকে ॥ নবীগঞ্জের বিবিয়ানা বিদ্যুৎ পাওয়ার প্লান্টের নির্মান কাজে নিয়োজিত দি বেঙ্গল ইলেক্ট্রনিক্স কোম্পানী লিমিটেড এর অফিস থেকে দিন দুপুরে ফিল্মি স্টাইলে ১২ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার ৬ ঘন্টার মধ্যে ৭ লক্ষ টাকাসহ ২ ছিনতাইকারীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে নবীগঞ্জ থানা পুলিশ। ঘটনাটি নিয়ে নবীগঞ্জের সর্বত্র তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। পুলিশের হাতে ধৃত ছিনতাইকারীরা হলো- নবীগঞ্জ উপজেলার আউশকান্দি ইউনিয়নের পারকুল গ্রামের আব্দুল আজিজের পুত্র সাজু আহমেদ (২৫), তার সহযোগী একই গ্রামের রাহাত উল্লার পুত্র সাঈদ আহমেদ (২৬)। পুলিশ ও এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, বিবিয়ানা বিদ্যুৎ পাওয়ার প্লান্টের নির্মাণ কাজে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দি বেঙ্গল ইলেক্ট্রনিক্স কোম্পানী লিমিটেড এর স্টোক ইনচার্জ ইমন আহমেদ ও সহকারী পরিচালক উত্তম কুমার ও কম্পিউটার অপারেটর সুমন মিয়া উক্ত কোম্পানীর হেড অফিসের কর্মকর্তা রবিউল আজিম সহ ৪ জন মিলে উক্ত কোম্পানীতে নিয়োজিত শ্রমিকদের মাসিক বেতনের টাকা প্রদান করছিলেন। বেঙ্গলের কর্মকর্তা ইমন আহমেদ বলেন, বুধবার দুপুর প্রায় আড়াইটার দিকে যখন আমরা শ্রমিকদের বেতন বিলি করছিলাম এই সময়ে কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই আমাদের অফিসে বীরদর্পে প্রবেশ করে সাজু ও সাঈদ। তারা ফিল্মি স্টাইলে আমাদের জিম্মি করে আমরা ৪ জনের কাছ থেকে ১২ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক এ খবর আমি আমার হেড অফিস ও থানা পুলিশকে অবহিত করি। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন নবীগঞ্জ থানার সাব ইন্সপেক্টর কাওসার আহমেদ। পুলিশ ৭ লক্ষ টাকা উদ্ধার করে সাজু ও সাঈদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। সাব ইন্সপেক্টর কাওসার আহমেদ বলেন- আমি ঘটনার সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষনিক একদল পুলিশ নিয়ে এলাকায় অবস্থান করি  প্রায় ৬ ঘন্টার মধ্যেই উল্লেখিত দুই ছিনতাইকারীকে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ৭ লক্ষ টাকা সহকারে স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার হাজী দুলাল মিয়ার বাড়ি থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। এদিকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আটককৃত দুইজনকে থানায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছেন। এদিকে আটককৃতরা জানান, দি বেঙ্গল ইলেক্ট্রনিক্স কোম্পানী লিমিটেডের কাছে টাকা পাওনা ছিল। আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।
-