উৎসবমুখর পরিবেশে হবিগঞ্জের ৮ উপজেলায় প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন-
জেলার ৮ উপজেলায় চেয়ারম্যান ৩২ ভাইস চেয়ারম্যান ৪৬ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩১ প্রার্থী ॥ প্রায় প্রতিটি উপজেলায়ই রয়েছে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ॥ দলীয় নির্দেশ অমান্য করে কয়েকটি উপজেলায় বিএনপি নেতারা প্রার্থী হয়েছেন
এসএম সুরুজ আলী ॥ উৎসবমুখর পরিবেশে হবিগঞ্জের ৮টি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। সোমবার জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও বিভিন্ন উপজেলায় সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে তারা মনোনয়নপত্র জমা দেন। সব উপজেলায়ই আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছেন। এবারের নির্বাচনে বিএনপি আনুষ্ঠানিকভাবে অংশ না নেয়ায় নির্বাচনের আমেজও খুব একটা জমে উঠছে না। তবে কয়েকটি উপজেলায় বিএনপি নেতারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। জেলার ৮ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৩২, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪৬ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩১ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। 
হবিগঞ্জ সদর ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৩, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন সদ্য পদত্যাগী উপজেলা চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমদুল হক (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান শামীম ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মোতাচ্ছিরুল ইসলাম। এখানে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির কোন নেতা অংশ নেননি। ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান আউয়াল (স্বতন্ত্র), সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল আহাদ ফারুক (স্বতন্ত্র), হবিগঞ্জ সদর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি প্রফেসর আবিদুর রহমান (জাতীয় পার্টি)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফৌরদৌসি আরা বেগম (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ সমর্থক নূরুন্নাহার (স্বতন্ত্র) ও সুফিয়া খাতুন (জাকের পার্টি)।
আওয়ামী লীগ প্রার্থী মশিউর রহমান শামীম জানান, আওয়ামী লীগের অনেকেই প্রার্থী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। তিনি বলেন, তারা আমার চেয়ে কোন অংশেই কম যোগ্য নন। কিন্তু দল যেহেতু একজনকেই মনোনয়ন দেবে সে বিবেচনা থেকে আমি পেয়েছি। মোতাচ্ছিরুল ইসলাম বলেন, পৌর আওয়ামী লীগসহ দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা আমাকে সমর্থন দিয়েছেন। ব্যবসায়ী নেতারাও আমাকে সমর্থন দিয়েছেন। সর্বস্তরের মানুষের ইচ্ছায় আমি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। আমার বিজয় ইনশাআল্লাহ সুনিশ্চিত।
লাখাই ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৩, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিউল আলম আজাদ (আওয়ামী লীগ), উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহফুজুল আলম মাহফুজ (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য রফিক আহমেদ (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী)। এ উপজেলায় বিএনপির কোন নেতা চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দেননি। ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মুর্শেদ কামাল চৌধুরী (স্বতন্ত্র), জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আমিরুল ইসলাম আলম (স্বতন্ত্র), সাবেক সেনা সদস্য আশরাফুল ইসলাম শের আলম (স্বতন্ত্র) ও তাউছ মিয়া (স্বতন্ত্র)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোছা. ফয়েজুন্নেছা বেগম (স্বতন্ত্র), হেনা বেগম (স্বতন্ত্র), জাহানারা বেগম (স্বতন্ত্র), আলেয়া বেগম (স্বতন্ত্র), আয়েশা সিদ্দীকা (স্বতন্ত্র)।
চুনারুঘাট ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কাদির লস্কর (আওয়ামী লীগ), উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), উপজেলা বিএনপির সভাপতি সৈয়দ লিয়াকত হাসান (স্বতন্ত্র), খেলাফত মজলিস নেতা প্রভাষক আব্দুল করিম ও আজিজুর রহমান । ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফুর রহমান মহালদার (স্বতন্ত্র), উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি জামাল হোসেন লিটন (স্বতন্ত্র) ও জামাত সমর্থক কাজী এম এ খালেক (স্বতন্ত্র)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবিদা খাতুন (স্বতন্ত্র), বিএনপি সমর্থক কাজী সাফিয়া খাতুন (স্বতন্ত্র) ও শাহেনা আক্তার চৌধুরী (স্বতন্ত্র)।
বাহুবল ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১০ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হাই (আওয়ামী লীগ), জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আব্দুল কাদির চৌধুরী (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি লন্ডন প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা আক্তারুজ্জামান নাছির (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), সৈয়দ খলিলুর রহমান (স্বতন্ত্র)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে যুবলীগ আহ্বায়ক তারা মিয়া (স্বতন্ত্র), উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল আহমেদ কুটি (স্বতন্ত্র), সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ফিরোজ আলী মিয়া (স্বতন্ত্র), মোহাম্মদ আলী (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ সমর্থক শশাংক রঞ্জন (স্বতন্ত্র), শফিকুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), নিহার রঞ্জন দেব (স্বতন্ত্র), খন্দকার ইদ্রিছ (স্বতন্ত্র), ইয়াকুত মিয়া (স্বতন্ত্র) এবং উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক ফারুকুর রশিদ ফারুক (স্বতন্ত্র)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি সমর্থক নাদিরা খানম (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ সমর্থক জ্যোৎ¯œা আক্তার (স্বতন্ত্র), উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নিলুফার ইয়াসমিন (স্বতন্ত্র) ও জাতীয় মহিলা পার্টির সভানেত্রী হাসিনা আক্তার (জাতীয় পার্টি)।
নবীগঞ্জ ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৬, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী (আওয়ামী লীগ), উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক ফজলুল হক চৌধুরী সেলিম (আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী), বিএনপি সমর্থক আব্দুল হাই চৌধুরী (স্বতন্ত্র), সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান হাদী গাজীর স্ত্রী গাজী খালেদা সারোয়ার (স্বতন্ত্র), জাপা নেতা হায়দর মিয়া (জাতীয় পার্টি) ও মাওলানা আবু ছালেহ (ইসলামী ঐক্যজোট)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ নেতা কাজী ওবায়দুল কাদের হেলাল (স্বতন্ত্র), গতি গোবিন্দ দাশ (স্বতন্ত্র), উপজেলা জাপার আহ্বায়ক ডাঃ শাহ আবুল খায়ের (স্বতন্ত্র), আবু ইউসুফ (স্বতন্ত্র), এস আর চৌধুরী সেলিম (স্বতন্ত্র), মুরাদ আহমদ (জাতীয় পার্টি) ও মোস্তাক আহমদ ফারকানী (ইসলামি ঐক্যজোট)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে নাজমা বেগম (স্বতন্ত্র), উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছইফা রহমান কাকুলি (স্বতন্ত্র), সাজেদা মজিদ (স্বতন্ত্র)।
আজমিরীগঞ্জ ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৯ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মর্তুজা হাসান (আওয়ামী লীগ), মো. আলাউদ্দিন (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), তার চাচাত ভাই স্বাধীন মিয়া (স্বতন্ত্র), উপজেলা যুবদল সাধারণ সম্পাদক খালেদুর রশিদ ঝলক (স্বতন্ত্র)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা হিরেন্দ্র পুরকায়স্থ (স্বতন্ত্র), আওয়ামীলীগ সমর্থক মনিরুজ্জামান মনু (স্বতন্ত্র), অসীম চৌধুরী সাগর (স্বতন্ত্র), নাজমুল হাসান (স্বতন্ত্র), আব্দুল জলিল (স্বতন্ত্র), মমিনুর রহমান সজিব (স্বতন্ত্র), জামায়াত সমর্থক বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল হাই (স্বতন্ত্র), হিফজুর রহমান (স্বতন্ত্র) ও শাহ বাহার উদ্দিন (স্বতন্ত্র)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রুখসানা আক্তার শিখা (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ নেত্রী সুজলা আক্তার (স্বতন্ত্র), মাহমুদা আক্তার রেফা হলিমা খাতুন (স্বতন্ত্র) ও সীমা রানী সরকার (স্বতন্ত্র)।
বানিয়াচং ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন যুবলীগ নেতা আবুল কাশেম চৌধুরী (আওয়ামী লীগ), উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন খান (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী) ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মঞ্জুর উদ্দিন আহমেদ শাহীন (স্বতন্ত্র), ছাত্রদল নেতা নকিব ফজলে রকিব মাখন (স্বতন্ত্র)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল বাহার খান (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক আমিন (স্বতন্ত্র), স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আশরাফ বাবু (স্বতন্ত্র), স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা নেতা আবেদুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), আওয়ামীলীগ নেতা স্মৃতি চ্যাটার্য্যি কাজল (স্বতন্ত্র) ও মন্টু চন্দ্র দাস। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মহিলা দল সভানেত্রী তানিয়া খানম (স্বতন্ত্র), মহিলা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী জাহানারা আক্তার বিউটি (স্বতন্ত্র), সাধারণ সম্পাদক হাসিনা আক্তার (স্বতন্ত্র) ও জেসমিন চৌধুরী (স্বতন্ত্র)।
মাধবপুর ঃ এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৩, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তারা হলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিক (আওয়ামী লীগ), প্রবাসী আওয়ামী লীগ নেতা এহতেশামুল বার চৌধুরী লিপু (আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী), জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এসএসএএম শাহজাহান (স্বতন্ত্র)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মুজিব উদ্দিন তালুকদার (স্বতন্ত্র), উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য শ্রীধাম দাশ গুপ্ত (স্বতন্ত্র), পৌর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল আজিজ (স্বতন্ত্র),  বাবুল হোসেন খান (স্বতন্ত্র)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি নেত্রী অ্যাডভোকেট সুফিয়া আক্তার হেলেন (স্বতন্ত্র), বিএনপি সমর্থক নাজমা পাঠান (স্বতন্ত্র), বিএনপি সমর্থক মরিয়ম রহমান বাবুনী (স্বতন্ত্র), মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোছা. রোকেয়া আক্তার (স্বতন্ত্র), আওয়ামী লীগ সমর্থক জাহানারা বেগম।
সংশ্লিষ্ট উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তাগণ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আগামীকাল মনোনয়নপত্র বাছাই করা হবে। ১৯ ফেব্রুয়ারি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন। ২০ ফেব্রুয়ারি প্রতিক বরাদ্দ দেয়া হবে।

-