সিলেটের শিল্পপতি রাগীব আলী ও তার ছেলের সাজা বহাল-
স্টাফ রিপোর্টার ॥ ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক জালিয়াতির মামলায় সিলেটের শিল্পপতি রাগীব আলী ও তার ছেলে আবদুল হাইয়ের ১৪ বছর কারাদন্ডের রায় বহাল রেখেছেন জজ আদালত। বৃহস্পতিবার সিলেটের জেলা ও দায়রা জজ বিশেষ আদালতের বিচারক নিম্ন আদালতের এ রায় বহাল রাখার আদেশ দেন।
মন্ত্রণালয়ের স্মারক জালিয়াতি করে তারাপুর চা-বাগান দখলের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলায় রাগীব আলী ও তার ছেলে আবদুল হাইকে মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে ২০১৭ সালের দুই ফেব্রুয়ারি ১৪ বছরের সাজা দেয়া হয়েছিল। রায়ের বিরুদ্ধে করা আপিল শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার সকালে বিশেষ দায়রা জজ আদালতের বিচারক নিম্ন আদালতের রায় বহাল রাখেন।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও জননিরাপত্তা আদালতের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট নওশাদ আহমদ চৌধুরী আপিলে রায় বহাল রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, বিশেষ দায়রা জজ আদালত রাগীব আলীর সাজার রায় বহাল রেখেছেন। ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক জালিয়াতি করে নগরের তারাপুর চা-বাগান ৯৯ বছরের জন্য লিজ নেয়ার অভিযোগে বিগত ২০০৫ সালে সিলেটের কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন তৎকালীন সহকারী কমিশনার ভূমি এসএম আব্দুল কাদের। তদন্ত এবং বিচার শেষে এ মামলায় ২০১৭ সালের দুই ফেব্রুয়ারি সিলেট জেলা আদালতের তৎকালীন মুখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরো পাঁচটি ধারায় রাগীব আলী ও তার ছেলে আবদুল হাইকে ১৪ বছরের কারাদন্ড দিয়েছিলেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে আসামিরা আপিল করলে বৃহস্পতিবার নিম্ন আদালতের রায় বহাল রেখে রায় দেন বিশেষ জজ আদালতের বিচারক।
আপিল শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট নওশাদ আহমদ চৌধুরী। আসামিপক্ষের আইনজীবী ছিলেন সাবেক আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু, অ্যাডভোকেট এটিএম মাসুদ টিপু ও অ্যাডভোকেট মঈনুল ইসলাম প্রমুখ।

-