খোয়াই নদীর পানি বিপদসীমার ২৩০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে ॥ পানি বৃদ্ধি অব্যাহত হবিগঞ্-
এসএম সুরুজ আলী ॥ হবিগঞ্জ শহর ঘেষে বয়ে যাওয়া খোয়াই নদীর পানি বিপদসীমার ২৩০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানিতে শহরের দানিয়ালপুর তলিয়ে গেছে। এর ফলে দানিয়ালপুরবাসী পানিবন্দি অবস্থায়ই রয়েছেন। এছাড়াও হুমকির সম্মুখীন হয়ে পড়েছে হবিগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ। গতরাত ১২টায় হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এমএল সৈকত জানান, বাল্লা সীমান্ত দিয়ে পানি কমতে শুরু করেছে। তবে শহর এলাকা দিয়ে এখনও কমতে শুরু করেনি। আবহাওয়া ভাল থাকলেও রাতেই নদীর পানি কমে যাবে বলে আশা করছি। সূত্র জানায়, টানা বর্ষণ ও ভারত থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলের পানিতে খোয়াই নদীতে প্লাবন দেখা দেয়। মঙ্গলবার বিকেল থেকে নদীতে পানি বাড়তে থাকে। ওইদিন রাত ১১টা থেকে খোয়াই নদীর পানি বিপদসীমার ১০০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। রাত ২টার পরে পানি বিপদসীমার ২০০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। গতকাল বুধবার সারাদিন পানি বাড়তে থাকে। সন্ধ্যা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত পানি বিপদসীমার ২৩০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল।
হবিগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী তাওহিদুল ইসলাম জানান, ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়েছে। সেখানকার পানি নেমে খোয়াই নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছিল। তিনি আরো জানান, বাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ অংশগুলোতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পর্যবেক্ষণ রয়েছে। পানি বৃদ্ধির কারণে তিনি হবিগঞ্জ শহরবাসীকে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়েছেন তিনি।
পানি বৃদ্ধির খবর পেয়ে গতকাল বিকেলে জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ নদীর বাঁধ পরিদর্শন করেন।
-
প্রথম পাতা