লাখাইর বিভিন্ন বাড়ি থেকে ৪ শতাধিক দেশীয় অস্ত্রসহ ৭ ব্যক্তি আটক ॥ ৫ জনকে কারাদন্ড-
এসএম সুরুজ আলী ॥ লাখাই উপজেলার মুড়িয়াউক গ্রামে বিভিন্ন বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ৪ শতাধিক দেশীয় অস্ত্রসহ ৭জনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতদের ৫ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড ও ২ জনকে অর্থদন্ড করা হয়েছে। আটককৃতরা হলো- মুড়িয়াউক গ্রামের সাজু মিয়ার পুত্র সামিরুল মিয়া (৪০), তার ভাই জহিরুল ইসলাম (২৮), হিরা মিয়ার পুত্র সেলিম মিয়া (৪৫), মৃত মুসলিম মিয়ার পুত্র কবির মিয়া (৫৫), মৃত আলী হোসেনের পুত্র সাঈদ মিয়া (৬০) ও সাতাউক গ্রামের দু’জন। সাতাউক গ্রামের দু’জনের নাম পুলিশ দিতে পারেনি বলে প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি।
পুলিশ সূত্র জানায়, গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরা ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হবিগঞ্জ সার্কেল) মোঃ হায়াতুন-নবী’র নির্দেশে লাখাই থানার ওসি বজলার রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মুড়িয়াউক গ্রামের বিভিন্ন বাড়িতে অভিযান চালায়। অভিযান চলাকালে ফিকল, টেটাসহ ৪শতাধিক দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয় এবং উল্লেখিত ব্যক্তিদের আটক করা হয়। সন্ধ্যায় তাদেরকে লাখাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমানের কার্যালয়ে হাজির করা হলে তিনি ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে আটককৃতদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দেন। তন্মধ্যে সাজু মিয়াকে ৪ মাস, সেলিম মিয়া ও সামিরুল মিয়াকে ৩ মাস করে, কবির মিয়াকে ২ মাস ও সাঈদ মিয়াকে ১ মাস কারাদন্ডে দন্ডিত করা হয়। এছাড়া সাতাউক গ্রামের দুই ব্যক্তিকে ৫ হাজার টাকা করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। লাখাই থানার ওসি বজলার রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে দৈনিক খোয়াইকে জানান, সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য গ্রামের মানুষের বাড়িতে রাখা দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করার লক্ষ্যেই আমরা এ অভিযান পরিচালনা করছি। নিয়মিত এই অভিযান পরিচালনা করা হবে।

-
প্রথম পাতা